Logo
ব্রেকিং :
নড়াইলে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে আহত নাগরপুরে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা পেল নবজাতক সিংড়ায় ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত  নেত্রকোনায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট পূর্বধলায় ডিবির অভিযানে ভারতীয় মদসহ গ্রেপ্তার-২ নেত্রকোনায় ৫২৪টি মন্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি সম্পন্ন রাণীশংকৈলে নিজ উপজেলায় উষ্ণ সংবর্ধনায় ভাসছেন স্বপ্না ও সোহাগী বিশৃঙ্খলা রোধে, পূজার সময় সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে…. পুলিশ সুপার গোলাম আজাদ খান রায়গঞ্জের পাঙ্গাসীতে ভূমিহীনের  বাড়িঘর ভাংচুরের অভিযোগ  মানিকগঞ্জের ৭টি উপজেলাতে শারদীয় দুর্গোৎসবে সকল প্রস্তুতি শেষ, বাজবে ঢাক-ঢোল-শানাই
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

এফআর টাওয়ারের বর্ধিতাংশের মালিক বিএনপি নেতা তাসভির আটক

রিপোর্টার / ১০ বার
আপডেট শনিবার, ৩০ মার্চ, ২০১৯

কালের কাগজ  ডেস্ক:৩০মার্চ ২০১৯,শনিবার।
এফআর টাওয়ারের বর্ধিত অংশের মালিক বিএনপি নেতা তাসভির উল ইসলামকে আটক করেছে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

শনিবার রাতে ঢাকা মহানগর (উত্তর) ডিবি পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) সাজাহান সাজু পরিবর্তন ডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, শনিবার রাত পৌনে ১১টার দিকে রাজধানীর বারিধারার বাসভবন থেকে তাসবিরুলকে আটক করা হয়।

এর আগে শনিবার বনানীর এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করে।

ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, এই ধরনের দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে নিহত-আহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে যদি কেউ মামলা না করে তাহলে, পুলিশ বা রাষ্ট্র বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে থাকে। তেমনি বনানীর ঘটনায়ও পুলিশ বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। তদন্ত সাপেক্ষে দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডিবি সূত্র জানিয়েছে, ওই মামলাতেই তাসভির উল ইসলামকে আটক করা হয়েছে।

তাসভির উল ইসলাম কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপির সভাপতি ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য। তিনি কাশেম ড্রাইসেলস কোম্পানি লিমিডেট নামে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক।

রাজউক সূত্র জানিয়েছে, ১৯৯৬ সালের ১২ ডিসেম্বর ভবনটির ভূমি মালিক ইঞ্জিনিয়ার ফারুক ও রূপায়ন গ্রুপ যৌথভাবে নকশা অনুমোদনের জন্য আবেদন করে। তখন রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) ১৮ তলা ভবন নির্মাণের জন্য নকশা অনুমোদন দেয়। পরে ২০০০ সালে বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় আসার পর ভবনটিকে ২৩তলা পর্যন্ত বর্ধিত করে নির্মাণ করা হয়।

ডেভেলপার কোম্পানি ভবনটির ২০ ও ২১তম তলাটি জাতীয় পার্টির প্রয়াত সাবেক সংসদ সদস্য মইদুল ইসলামের কাছে বিক্রি করে। মইদুল ইসলামের কাছ থেকে ফ্লোর দুটি কিনে নেন তাসভির উল ইসলাম। এরপর তিনি নকশা পরিবর্তন করে ছাদের ওপর আরও দুটি ফ্লোর নির্মাণ করেন।

এদিকে বৃহস্পতিবার আগুনের ঘটনার আগেই এফ আর টাওয়ারের জমির মালিক ইঞ্জিনিয়ার ফারুক ভবনের নিচতলায় তাসভির উল ইসলামকে অবৈধ দখলদার হিসেবে উল্লেখ করে একটি নোটিশ লাগান। ওই নোটিশে তিনি ভবনে নকশতার আশঙ্কা করেছিলেন। পাশাপাশি এতে তিনি ভবনটি নির্মাণে নানা অনিয়মের তথ্যও তুলে ধরেন।

বৃহস্পতিবার বনানীর কামাল আতাতুর্ক এভিনিউয়ের ফারুক-রুপায়ন (এফআর) টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মুহূর্তেই মধ্যে নিভে যায় ২৬ তাজা প্রাণ।


এ জাতীয় আরো খবর
ThemeCreated By ThemesDealer.Com