Logo
ব্রেকিং :
নড়াইলে এসএসসি পরীক্ষার্থীকে কুপিয়ে আহত নাগরপুরে প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা পেল নবজাতক সিংড়ায় ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত  নেত্রকোনায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট পূর্বধলায় ডিবির অভিযানে ভারতীয় মদসহ গ্রেপ্তার-২ নেত্রকোনায় ৫২৪টি মন্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি সম্পন্ন রাণীশংকৈলে নিজ উপজেলায় উষ্ণ সংবর্ধনায় ভাসছেন স্বপ্না ও সোহাগী বিশৃঙ্খলা রোধে, পূজার সময় সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে…. পুলিশ সুপার গোলাম আজাদ খান রায়গঞ্জের পাঙ্গাসীতে ভূমিহীনের  বাড়িঘর ভাংচুরের অভিযোগ  মানিকগঞ্জের ৭টি উপজেলাতে শারদীয় দুর্গোৎসবে সকল প্রস্তুতি শেষ, বাজবে ঢাক-ঢোল-শানাই
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

রংপুরে বিষাক্ত সাপের কামড়ের শিকার হলেন বেরোবি শিক্ষার্থী

রিপোর্টার / ৯ বার
আপডেট রবিবার, ৪ আগস্ট, ২০১৯

নাহিদুজ্জামান নাহিদ, বেরোবি প্রতিনিধি:০৪ আগস্ট-২০১৯,রবিবার।

রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে(বেরোবি)সাপের কামড়ে গুরুতর আহত গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ১ম ব্যাচের শিক্ষার্থী মানিক মিয়া।
আজ রবিবার ৭.১৫টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ থেকে মাগরিবের নামাজ শেষ করে বের হওয়ার সময় মানিক মিয়ার স্যান্ডেলের উপরে একটি সাপ অবস্থান করছিল। সে সময় বেখেয়ালিভাবে স্যান্ডেলে পা দেওয়া মাত্রই তাঁর ডান পায়ের আঙ্গুলে কামড় দেয়। এসময় মানিক মিয়ার চিৎকার করলে মসজিদ থেকে কয়কজন বের হয়ে আসলে তৎক্ষণাৎ সাপটি মসজিদের পাশে অবস্থিত জঙ্গলে ঢুকে পড়ে। পরে শিক্ষার্থীরা তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এম্বুলেন্সে করে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নেয়া হয়। বর্তমানে মানিক মিয়াকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ৩ নম্বর ওয়ার্ডে ২৪ ঘন্টার পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।
এদিকে সাপাতঙ্কে রয়েছে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। ক্যাম্পাসের সর্বত্রই সাপের উপস্থিতি লক্ষ্য করার মতো। এর আগেও ফাইন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের ক্লাশ রুম থেকে সাপুড়ে বিষধর সাপ উদ্ধার করেছে। এমন কি বারবার সাপের উপস্থিতির কারণে অনির্দিষ্টকালের জন্য তালাবদ্ধ করে রাখা হয় বিভাগটির অফিস রুম। গত শুক্রবার (০২ আগষ্ট) ঐ বিভাগের অফিসরুমটি কিছুক্ষণের জন্যে খোলা হলে আবারো ৪ টি সাপ দেখা যায়, এরপর আবারো অনির্দিষ্টকালের জন্য তালাবদ্ধ করে রাখা হয়। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, বারবার বিষধর সাপ দেখা যাওয়ার পরেও তেমন কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। আমরা সবসমই আতঙ্কে থাকি। অতি দ্রুত ব্যাবস্থা নেয়া হোক। বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড.শফিকুর রহমান ফেসবুক স্টাটাসে লিখেছেন, আমাদের অরক্ষিত ক্যাম্পাস, সাপ-শিয়াল- কুকুর ও হিংস্র দু’পেয়ের অভয়ারণ্য হয়ে যাচ্ছে! যে কোন সময় আমরা এর শিকার হতে পারি।
আজ চার আগস্ট শিক্ষক ডরমিটরির ভেতরে নিহত হয়েছে কোবরা সাপ। এটাকে মারতে গিয়ে একজন শিক্ষক খানিকটা আঘাত পেয়েছেন। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর (চলতি দায়িত্ব) আতিউর রহমান বলেন, মানিক মিয়াকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে যতটুকু সহযোগীতা করা যায় আমরা করবো।হাসপাতালে তাঁর বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মাসুদ-উল-হাসান বলেন, এর আগেও ক্যাম্পাসে সাপের উপস্থিতি দেখা যাওয়ায় ঝোপঝার পরিষ্কার অভিযান শুরু হয়েছিল। কিন্তু কর্মচারীদের আন্দোলনে তা বন্ধ হয়ে যায়। তিনি আরো বলেন আউট প্রসেসিং এর মাধ্যামে এ সাপ সমস্যা সমাধান করতে হবে।###

কালের কাগজ/প্রতিনিধি/জা.উ.ভি


এ জাতীয় আরো খবর
ThemeCreated By ThemesDealer.Com