Logo
ব্রেকিং :
নাগরপুরে খেজুর রস আহরণে ব্যস্ত গাছিরা টাঙ্গাইলে আশ্রয়ণের ঘরে ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল, দিশেহারা ৪০ পরিবার ধানের বাজারমূল্যে খুশি কৃষক, পরিবারে উৎসব জ্বলছে আগুন পুড়ছে কাঠ, ইটের ভাটায় সর্বনাশ নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বিশ্ব মানবাধিকার দিবস পালন উপলক্ষে টাঙ্গাইলে মহিলা পরিষদের সংবাদ সম্মেলন নেত্রকোনায় ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নাগরপুরে আওয়ামীলীগ নেতা হিমু’র উদ্যোগে বড় পর্দায় বিশ্বকাপ ফুটবল দেখার ব‍্যবস্থা গোয়ালন্দ উপজেলা কৃষকলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত  উন্নয়নের জন্য নৌকায় ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী নদী ভাঙ্গন রোধে দুই হাজার কোটি টাকার প্রকল্প একনেকে পাশ হলে কাজ শুরু হবে– -দূর্জয়
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে গৃহবধূকে হত্যা শ্বশুড়-শ্বাশুড়ি আটক

রিপোর্টার / ২৯ বার
আপডেট শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২

এইচ এম মোকাদ্দেস, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি :২৪ সেপ্টেম্বর-২০২২,শনিবার।
সিরাজগঞ্জের তাড়াশে নাসিমা খাতুন (২২) নামে এক গৃহবধূকে জোরপূর্বক গ্যাস ট্যাবলেট সেবন ও শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগে শ্বশুর ও শাশুড়িকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় গৃৃহবধূূূর স্বামী সুমন (২৬) ও তার সহযোগীরা পলাতক রয়েছেন। শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে উপজেলার মাধাইনগর ইউনিয়নের চক ঝুরঝুরি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বৃৃহস্পতিবার সকালে নিহত গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত গৃহবধূ নাসিমা খাতুন একই উপজেলার বেত্রাসিন গ্রামের গহের সরকারের মেয়ে ও চক ঝুরঝুরি গ্রামের সুমনের স্ত্রী।

চক ঝুরঝুরি গ্রামের প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, ৭/৮ বছর আগে সুমনের সঙ্গে বিয়ে হয় নাসিমার। তাদের সংসারে দু-সন্তান রয়েছে। স¤প্রতি শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে নাসিমার দ্ব›দ্ব চলছিল। এ অবস্থায় সুমন কিছুদিন আগে স্ত্রী নাসিমাকে চাকরির জন্য ঢাকায় নিয়ে যান। শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তারা ঢাকা থেকে ফিরে আসেন।
শুক্রবার দিনগত রাত আড়াইটার দিকে বাড়ি থেকে প্রায় ৩শ মিটার দূরে ভ্যাবড়া পুকুরপাড়ে নাসিমাকে নিয়ে যায় স্¦ামী সুমন ও তার তিন সহযোগী। পুকুরপাড়ে তাকে প্রথমে শ্বাসরোধে ও পরে জোরপূর্বক গ্যাস ট্যাবলেট সেবন করিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। এ সময় স্থানীয় সমেজ আলী শব্দ পেয়ে বাইরে বের হন। তিনি বাড়ির লোকজনকে ডেকে ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই সুমন ও তার সহযোগীরা নাসিমাকে অর্ধমৃত অবস্থায় রেখে পালিয়ে যায়। পরে গ্রামবাসী এসে তাকে উদ্ধার করে স্বামীর বাড়িতে নিয়ে গেলেও তার শ্বশুর-শাশুড়ি বাড়ির গেট খোলেনি। এ অবস্থায় অর্ধমৃত নাসিমা বলেন, তার স্বামী ও অপরিচিত তিনজন লোক তাকে খুন করার চেষ্টা করেছে। এর কিছুক্ষন পর মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন তিনি। তার মৃত্যুর পর গ্রামবাসী শ্বশুর সারোয়ার হোসেন ও শাশুড়ি ফিরোজা বেগমকে অবরুদ্ধ করে রেখে পুলিশে খবর দেন। পরে পুুলিশ গিয়ে তাদের আটক করে।

তাড়াশ থানার ওসি (তদন্ত) নূরে আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, স্বামী সুমন ও তার তিন সহযোগী মিলে পুকুরপাড়ে নিয়ে নাসিমাকে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গৃহবধূর শ্বশুর সারোয়ার হোসেন ও শাশুড়ি ফিরোজা বেগমকে আটক করা হয়েছে। নিহতের মরদেহ করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয় ।####

 

 

 

 


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com