Logo
ব্রেকিং :
এলাকাবাসীর প্রতিরোধে ড্রেন নির্মানের নিম্নমানের ইট সরাতে বাধ্য হলো ইউপি চেয়ারম্যান  রাণীশংকৈলের  দুই খালাতো ভাই ও ইউপি সদস্যসহ সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-৩ নাগরপুরে তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ বিষয়ক প্রশিক্ষণ নড়াইলে শ্রমিক সংকটে কৃষকদের পাশে ৩১৫জন শিক্ষার্থী, তিনদিন ধরে ধানকাটা উৎসব কালিয়ায় নিখোজ স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার নড়াইলের নিরিবিলি পিকনিক স্পট থেকে অবৈধ বন্যপ্রাণী উদ্ধার ২৫ হাজার টাকা জরিমানা নড়াইলে ভ্যান ও মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু আহত -৬ মির্জা ফখরুলরা স্বপ্ন দেখেছিল বাংলাদেশ পাকিস্তান বানাবে এখন স্বপ্ন দেখছে শ্রীলংকা বানাবে –দুর্জয় হরিপুরে বসত ভিটার জমির জেরে ছেলের হাতে মা খুন গ্রেপ্তার ৩   ঈশ্বরগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

টাঙ্গাইলে বেইলী সেতুর পাটাতন ভেঙে জন দুর্ভোগ চরমে

রিপোর্টার / ২ বার
আপডেট সোমবার, ১৪ জানুয়ারী, ২০১৯

মুক্তার হাসান, টাঙ্গাইল থেকে ঃ১৪ জানুয়ারী,সোমবার।

টাঙ্গাইলের সখীপুর-বাটাজোর সড়কের কীর্ত্তনখোলা ধুমখালি এলাকায় বেইলী সেতুর পাটাতন ভেঙে গত দুই সপ্তাহ ধরে সকল ধরনের ভারী যানবাহন চলাচল প্রায় সম্পূর্ণ বন্ধ রয়েছে। দুই সপ্তাহ আগে একটি মালবাহী ট্রাকের চাপে জরাজীর্ণ ওই সেতুর পাটাতন ভেঙে দুর্ভোগে পড়েছেন ওই সড়কে চলাচলকারী জনগন।

জানা যায়, সখীপুর সদর থেকে সীডস্টোর হয়ে ময়মনসিংহের ভালুকা, গফরগাঁও, গাজীপুরের শ্রীপুর ও মাওনা যাতায়াতের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক এটি। এছাড়াও সখীপুর সদর থেকে রাজধানী শহর ঢাকা যাতায়াতের বিকল্প সড়কও এটি। প্রতিদিন ওই সড়কে মালবাহী ট্রাক, পিকআপ, প্রাইভেট, মাইক্রোবাসসহ প্রায় হাজার খানেক সিএনজি চালিত অটোরিকশা চলাচল করে থাকে। সেতুটি ভেঙে পড়ায় ওইসব এলাকার পন্যবাহী ট্রাক, পিকআপ ও যাতায়াতে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন ব্যবসায়ী ও সাধারণ লোকজন ।

ওই সড়কে নিয়মিত চলাচলকারী আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রায় ২০-২৫ বছর আগে কীত্তণখোলা ধুমখালি এলাকায় ওই ব্রিজটি নির্মিত হয়েছে। গত ২/৩ বছর ধরে সেটুটির অবস্থা খুবই জরাজীর্ণ। বছরে ২/৩ বার সেতুটির মেরামত করতে হয়। শিগগিরই বেইলি সেতুর পরিবর্তে পাকা ব্রিজ নির্মাণ করা না হলে যে কোনো মুহুর্তে প্রাণহাণির মত ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।’

উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল (এলজিইডি) কাজী ফাহাদ কুদ্দুস বলেন, ওই ব্রিজটি ভেঙ্গে একটি নতুন ব্রিজ নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে প্রকল্প পাঠানো হয়েছে। আশা করছি, জুন মাসের মধ্যেই অনুমোদন পাব। চলাচল স্বাভাবিক করতে শিগগিরই সেতুর ভেঙে যাওয়া পাটাতনটি সংস্কার করে দ্রুত সড়কটি চলাচলের উপযোগী করা হবে বলেও তিনি জানান।

কালের কাগজ/প্রতিনিধি/জা.উ.ভি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
ThemeCreated By ThemesDealer.Com