Logo
ব্রেকিং :
আগামীকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন নাগরপুরে সহবতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত সরিষাবাড়ীতে পরকিয়ার জেরে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন টাঙ্গাইল পাসপোর্ট অফিসে বিশেষ সংকেতে চলে ঘুষ বানিজ্য টাঙ্গাইল পৌর ভবনের সামনে স্থাপিত জাতির জনকের ভাস্কর্য ভেঙ্গে ফেলার এক বছরেও তা প্রতিস্থাপন হয়নি মির্জাপুরে ফাঁড়ির হাজতখানায় আটক ব্যক্তির মৃত্যু টাঙ্গাইলে ২৪ জাতের কুকুরের খামার, আমদানির চেয়ে ৫০ ভাগ সাশ্রয় মানিকগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনায় ধারালো অস্ত্রের কোপের শিকার যুবক সৈয়দপুরে বেশি দামে চিনি বিক্রি করায়   দুই দোকানে ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা ঘিওরে ব্র্যাকের উদ্যোগে বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

শিক্ষার্থীদের টাকায় মানিকগঞ্জ সরকারি দেবেন্দ্র কলেজে আইসিটি শিক্ষকদের সম্মানি

রিপোর্টার / ২১ বার
আপডেট বৃহস্পতিবার, ১৭ জানুয়ারী, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ ১৭ জানুয়ারী,বৃহস্পতিবার ।
মানিকগঞ্জ সরকারী দেবেন্দ্র কলেজের আসন্ন এইচএসসি পরীক্ষার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিষয়ের ব্যবহারিক পরীক্ষায় অর্থ আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরীক্ষার নামে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে দেড়শ টাকা করে আদায় করছেন আইসিটি বিভাগের কর্তৃপক্ষ। প্রায় আড়াই লাখ টাকা আদায় করা হলেও শিক্ষার্থীদের কোন প্রকার রশিদ দেওয়া হচ্ছে না। কলেজ কর্তৃপক্ষ বলছেন শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে আদায় করা অর্থ আইসিটি শিক্ষকদের সম্মানি ও পরীক্ষার পিছনে ব্যয় করা হয়।

বৃহস্পতিবার সরকারী দেবেন্দ্র কলেজ গিয়ে দেখা গেছে, এইচএসসি পরীক্ষার শিক্ষার্থীরা আইসিটি বিষয়ে ব্যবহারী পরীক্ষা দিচ্ছে। ওই সব শিক্ষার্থীরা জানান, ব্যবহারী পরীক্ষার নামে তাদের কাছ থেকে দেড়শ টাকা করে নিয়েছেন।

কলেজের শিক্ষার্থীরা জানান, দেবেন্দ্র কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখার আইসিটি ব্যবহারিক পরীক্ষায় জন্য প্রতি শিক্ষার্থীর কাছ থেকে দেড়শ টাকা করে আদায় করেছেন শিক্ষকরা। এই টাকা আদায়ের পর আইসিটি বিভাগ ও কলেজ থেকে কোন রশিদ দেওয়া হচ্ছেনা। কলেজে ফরম ফিলাপের সময় যাবতীয় ফি পরিশোধ করা হয়েছে। কিন্তু এখন পরীক্ষার নামে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে এই টাকা আদায় করছেন শিক্ষকরা। তাই বাধ্য হয়ে এই টাকা দিতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের।

এদিকে শিক্ষার্থীদের অভিভাবক দেলোয়ার হোসেন জানান, বেসরকারী কোন কলেজে আইসিটি ব্যবহারীক পরীক্ষার নামে টাকা নিচ্ছে না। অথচ সরকারী দেবেন্দ্র কলেজে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর নিকট থেকে টাকা আদায় করছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এঅনিয়ম মেনে নেওয়া যায় না।

আইসিটি বিভাগের বিভাগীয় প্রধানের দায়িত্বে থাকা দুলাল চন্দ্র পোদ্দার জানান, এই বছর ১৬শত ৩৫ জন ব্যবহারিক পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। কিন্তু সরকারী দেবেন্দ্র কলেজের কলেজের আইসিটি বিভাগের কোন শিক্ষক না থাকায় অত্র কলেজের রসায়ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান আখেরুজ্জামান খান, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শারমিন আফরোজ জেসমিন, প্রভাষক লুৎফর রহমান, গণিতের প্রভাষক বায়েজিদ হাসান, শফিকুল ইসলাম ও বোটানির প্রভাষক মাসুদ রানা এই বিভাগের পাঠদান করছেন। সারা বছর এসব শিক্ষকরা বিনা পারিশ্রমিকে পড়ান। ব্যবহারীক পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে শিক্ষকদের সম্মানি ও পরীক্ষার আনুসাঙ্গীগ বিষয়ে খরচ করা হয়। তবে তিনি স্বীকার করেন পরিপত্রে বলা হয়েছে পরীক্ষার ব্যয় সংশ্লিট কলেজ নিজ ব্যবস্থাপনা পরিচালনা করবেন। কোন উপায় না থাকায় তাই শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়া হচ্ছে।

এবিষয়ে সরকারী দেবেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো.সাইদুর রহমান বলেন, বিষয়টি ধারাবাহিক ভাবে চলে এসেছে। আইসিটি বিভাগে কোন শিক্ষক না থাকায় অন্য বিভাগের শিক্ষক দিয়ে কাস ও পরীক্ষা পরিচালনা করা হয়। শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে যে টাকা নেওয়া হয়েছে তা শিক্ষকদের সম্মানি ও পরীক্ষার যাবতীয় কাজে ব্যয় হয়।######

কালের কাগজ/প্রতিনিধি/জা.উ.ভি


এ জাতীয় আরো খবর
ThemeCreated By ThemesDealer.Com