Logo
ব্রেকিং :
নাগরপুরে খেজুর রস আহরণে ব্যস্ত গাছিরা টাঙ্গাইলে আশ্রয়ণের ঘরে ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল, দিশেহারা ৪০ পরিবার ধানের বাজারমূল্যে খুশি কৃষক, পরিবারে উৎসব জ্বলছে আগুন পুড়ছে কাঠ, ইটের ভাটায় সর্বনাশ নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বিশ্ব মানবাধিকার দিবস পালন উপলক্ষে টাঙ্গাইলে মহিলা পরিষদের সংবাদ সম্মেলন নেত্রকোনায় ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নাগরপুরে আওয়ামীলীগ নেতা হিমু’র উদ্যোগে বড় পর্দায় বিশ্বকাপ ফুটবল দেখার ব‍্যবস্থা গোয়ালন্দ উপজেলা কৃষকলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত  উন্নয়নের জন্য নৌকায় ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী নদী ভাঙ্গন রোধে দুই হাজার কোটি টাকার প্রকল্প একনেকে পাশ হলে কাজ শুরু হবে– -দূর্জয়
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

টাঙ্গাইলে ডাকাতি করতে গিয়ে পুলিশের এসআইসহ পাঁচজন আটক

রিপোর্টার / ২২ বার
আপডেট রবিবার, ২০ জানুয়ারী, ২০১৯

মুক্তার হাসান, টাঙ্গাইল থেকে ঃ২০ জানুয়ারী,রবিবার ।
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ডাকাতির চেষ্টাকালে পুলিশের এক উপপরিদর্শকসহ (এসআই) ৫জনকে আটক করেছে স্থানীয় জনতা।

শনিবার গভীর রাতে উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়নের গেড়ামারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে মির্জাপুর থানার পরিদর্শক তদন্ত মোশারফ হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

জানা গেছে, শনিবার রাত আনুমানিক দুইটার দিকে সাদা পোশাকে মির্জাপুর থানার উপপরিদর্শক সোহেল কদ্দুছের নেতৃত্বে ৭/৮ জন যুবক গেড়ামারা গ্রামের আলমাছ মিয়ার বাড়িতে গিয়ে দরজা খুলতে বলেন। বাড়ির মালিক দরজা না খুলে তাদের পরিচয় জানতে চাইলে তারা নিজেদের পুলিশ বলে পরিচয় দেন। বাড়ির মালিকের সন্দেহ হলে তিনি ডাকাত ডাকাত বলে চিৎকার করেন। চিৎকার শুনে গ্রামের লোকজন এগিয়ে এসে তাদের ঘেরাও করে আটক করেন। এ সময় সেখান থেকে দুই যুবক পালিয়ে গেলেও এসআই সোহেল কদ্দুছসহ পাঁচজনকে আটক করে গ্রামবাসী। বাড়ির মালিক আলমাছ মিয়া জানান, গভীর রাতে দরজায় আঘাত করার পর আমরা আতঙ্কিত হয়ে উঠি। পুলিশ পরিচয় দিলেও তাদের দেখে পুলিশ মনে না হওয়ায় পরিবারের লোকজন চিৎকার করতে থাকেন। পরে গ্রামবাসী এসে তাদের ধরে ফেলেন।

এসআই সোহেল কদ্দুছ ছাড়া আটকৃতরা হলেন রংপুর জেলার শহিদুর রহমান ও সাইদুল ইসলাম, বহুরিয়া ইউনিয়নের কোর্টবহুরিয়া গ্রামের ইয়াকুব আলীর ছেলে আনোয়ার হোসেন, মীর দেওহাটা গ্রামের মৃত তমিজ উদ্দিনের ছেলে ফিরোজ মিয়া।

এ ব্যপারে মির্জাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুল হক বলেন, এসআই সোহেল কদ্দুছের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তার কাছে লিখিত ভাবে জানানো হবে। আটককৃত অন্যদের বিষয়ে যথাযথ আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কালের কাগজ/প্রতিনিধি/জা.উ.ভি


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com