Logo
ব্রেকিং :
মানিকগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সভাপতি আমিনুল, সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান ভোট চোররা ভোট চুরি করতেই জানে: শেখ হাসিনা নেত্রকোনায় মহিলা পরিষদের সাংবাদিক সম্মেলন নগরকান্দায় কৃষকের মাঝে পেঁয়াজের বীজ বিতরণ  যশোরে প্রধানমন্ত্রীর জনসভা হতে চুরি যাওয়া মূল্যবান ১২ টি মোবাইল ফোন গোয়ালন্দে উদ্ধার  সৈয়দপুরে ভোর রাতে ৫ দোকানের  ২০ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে ছাই সৈয়দপুরে বর্ণাঢ্য আয়োজনে উদ্বোধন হলো কাউন্সিলর গোল্ডকাপ ফুটবল টূর্ণামেন্ট  আগামী জুনে শুভ উদ্বোধন করা হবে  সিরাজগঞ্জ বিসিক শিল্প পার্ক  ……… শিল্প মন্ত্রী নূরুল মজিদ নাগরপুরে খেজুর রস আহরণে ব্যস্ত গাছিরা টাঙ্গাইলে আশ্রয়ণের ঘরে ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল, দিশেহারা ৪০ পরিবার
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

দল চাইলেও আর জামায়াতের রাজনীতিতে ফিরবেন না ব্যারিস্টার রাজ্জাক!

রিপোর্টার / ১৩ বার
আপডেট রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯

কালের কাগজ ডেস্ক:১৭ ফেব্রিুয়ারী,রবিবার।

মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে স্বাধীনতাবিরোধী ভূমিকার জন্য দল হিসেবে জামায়াতকে ক্ষমা চাওয়ার পরামর্শের জেরে দল থেকে পদত্যাগ করেছেন জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাক। জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার পরামর্শে ব্যারিস্টার রাজ্জাক যেভাবে দলে নিগৃহীত হয়েছেন তা থেকেই তিনি পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে জামায়াতের একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্র বলছে, ব্যারিস্টার রাজ্জাককে ফেরানোর জন্য চেষ্টা করছে জামায়াতে ইসলামী। কিন্তু তিনি জানিয়েছেন, একাত্তরে স্বাধীনতা যুদ্ধে নেতিবাচক অবস্থানের জন্য ক্ষমা চাইলেও জামায়াতে ইসলামীর রাজনীতিতে আর ফিরবেন না তিনি।

শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় বিবিসি বাংলার বিশেষ ফেসবুক লাইভে এসে এসব মতামত জানিয়েছেন ব্যারিস্টার রাজ্জাক। তিনি বলেছেন, চিন্তা-ভাবনা করেই জামায়াতে ইসলামী থেকে পদত্যাগ করেছি। আমি এই মুহূর্তে অন্য কোনো দলে যোগদান করবো না। আমি আমার পেশায় ফিরে যাব। যদি তারা (জামায়াত) একাত্তর সালের নেতিবাচক ভূমিকার জন্য ক্ষমা চায় তবুও ফিরে যাব না।

তিনি আরও বলেন, আমি কোনো চাপে পড়ে দল ছাড়ছি না। ২০০১ সালে আমি একাত্তর সালের ইস্যুতে ক্ষমা চাওয়ার বিষয়টি উত্থাপন করেছিলাম। কিন্তু আমার সেই দাবি কখনো আমলে নেয়নি। ৩০ বছর আগে যখন আমি জামায়াতে যোগদান করেছিলাম; তখন আমি বলেছিলাম- জামায়াতের রাজনীতি সংস্কার করবো। কিন্তু আমি ব্যর্থ হয়েছি। স্বাধীনতাযুদ্ধের সময় জামায়াতের বিতর্কিত ভূমিকার জন্য বারবার ক্ষমা চাওয়ার জন্য বলেছি। ইতিহাসের উদাহরণ দিয়েছি যে- স্বাধীনতার বিরোধিতা করে কোনো দেশে রাজনীতি করা সম্ভব না।

বাংলাদেশ ধর্মনিরপেক্ষ সংবিধান দ্বারা পরিচালিত তাই সংবিধানের আলোকে রাজনীতি করাই উত্তম বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ইসলামী রাজনীতির মূল কথা হচ্ছে জনগণের কল্যাণ। তাই ধর্মনিরপেক্ষ সংবিধানের আলোকে রাজনীতি করা উচিৎ।
উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাক যুক্তরাজ্যের বারকিং, এসেক্স থেকে জামায়াতের আমির মকবুল আহমাদ বরাবর পদত্যাগপত্র পাঠান।


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com