Logo
ব্রেকিং :
নাগরপুরে খেজুর রস আহরণে ব্যস্ত গাছিরা টাঙ্গাইলে আশ্রয়ণের ঘরে ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল, দিশেহারা ৪০ পরিবার ধানের বাজারমূল্যে খুশি কৃষক, পরিবারে উৎসব জ্বলছে আগুন পুড়ছে কাঠ, ইটের ভাটায় সর্বনাশ নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বিশ্ব মানবাধিকার দিবস পালন উপলক্ষে টাঙ্গাইলে মহিলা পরিষদের সংবাদ সম্মেলন নেত্রকোনায় ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল নাগরপুরে আওয়ামীলীগ নেতা হিমু’র উদ্যোগে বড় পর্দায় বিশ্বকাপ ফুটবল দেখার ব‍্যবস্থা গোয়ালন্দ উপজেলা কৃষকলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত  উন্নয়নের জন্য নৌকায় ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী নদী ভাঙ্গন রোধে দুই হাজার কোটি টাকার প্রকল্প একনেকে পাশ হলে কাজ শুরু হবে– -দূর্জয়
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

ব্যারিস্টার রাজ্জাককে স্বাগত জানালেন ড. কামাল

রিপোর্টার / ১৩ বার
আপডেট মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯

কালের কাগজ ডেস্ক:১৯ ফেব্রুয়ারী,মঙ্গলবার।

একাত্তরে স্বাধীনতার বিপক্ষে দাঁড়ানোর জন্য জামায়াতে ইসলামী ক্ষমা না চাওয়ার কারণ দেখিয়ে সদ্য পদত্যাগ করা সহকারি সেক্রেটারি জেনারেল ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাকের দল ছাড়ার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন।

মঙ্গলবার বিকালে ফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকের পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

ব্যারিস্টার রাজ্জাকের সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে ড. কামাল হোসেন বলেন, “ক্ষমা চাওয়ার বিষয়কে আমি স্বাগত জানাই।”

ক্ষমা চাওয়াকে যথেষ্ট মনে করছেন কি না-এমন প্রশ্নের জবাবে ড. কামাল বলেন, আমি মনে করি না এটা যথেষ্ট। মাত্র একজন নেতা ক্ষমা চাওয়ার কথা বলেছেন। তাদের ক্ষমা চাওয়া হবে বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে মেনে নেয়ার প্রথম পদক্ষেপ। কিন্তু ক্ষমা চাওয়ার মাধ্যমে সব কিছু মাফ হয়ে যাবে না।

প্রসঙ্গত, মুক্তিযুদ্ধকালীন ভূমিকার জন্য ক্ষমা চাওয়া এবং নতুন নামে দল গঠন নিয়ে জামায়াতে ইসলামীতে চলছে অস্থিরতা। এরই মধ্যে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি লন্ডন থেকে পাঠানো এক বিবৃতিতে দল ছাড়ার ঘোষণা দেন দলটির সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল ব্যারিস্টার আবদুর রাজ্জাক।

এছাড়া শিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মুজিবুর রহমান মঞ্জুকে জামায়াত থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এর আগে জামায়াতে ইসলামী নতুন নামে আরেকটি দল শুরু করার চিন্তা ভাবনা করছে বলে জানিয়েছে বিভিন্ন সূত্র।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, এমন পরিস্থিতি মোকাবেলায় দলের অবস্থান জানিয়ে শুক্রবার তৃণমূলকে চিঠি দিয়েছে জামায়াতে ইসলামী।

চিঠিতে বলা হয়, সংগঠনের সব সিদ্ধান্ত দলের আমীর, সেক্রেটারি, অঞ্চল দায়িত্বশীল, জেলা ও মহানগর আমীরের মাধ্যমে যথাসময়ে সরাসরি জানানো হবে। এর বাইরে কারও আবেদন-নিবেদন ও অনুরোধে নেতাকর্মীরা যাতে সাড়া না দেয়, সে ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

কালের কাগজ/প্রতিবেদক/জা.উ.ভি


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com