Logo
ব্রেকিং :
দৌলতপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন পালিত ভূঞাপুরে পুত্রবধূর বিরুদ্ধে শ্বাশুরিকে হত্যার অভিযোগ সরিষাবাড়ীতে শেখ হাসিনার জন্মদিনে নতুন কাপড় পেলো ২ শতাধিক দুঃস্থ ও এতিম শিশু ভূঞাপুরে অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন নাগরপুরে উপজেলা আ.লীগ আয়োজনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র ৭৬ তম জন্মদিন পালিত টাঙ্গাইলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন পালিত দৌলতদিয়া মডেল হাই স্কুলে অভিভাবক  সভা অনুষ্ঠিত  ঢাবিতে ছাত্রদলের উপর হামলার প্রতিবাদে সৈয়দপুরে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা ঘিওরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন পালিত নেত্রকোনায় তথ্য অধিকার দিবসের আলোচনা সভা
নোটিসঃ
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি : আলহাজ্ব এ.এম নাঈমূর রহমান দূর্জয় ,সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জালাল উদ্দিন ভিকু,সহ-মফস্বল সম্পাদক মো: জাহিদ হাসান হৃদয়

ফায়ার সার্ভিস কর্মী: বাস্তবের হিরোদের গল্প সম্প্রতি চকবাজার ট্রাজ

রিপোর্টার / ৮ বার
আপডেট সোমবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯

কালের কাগজ ডেস্ক: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

সম্প্রতি চকবাজার ট্রাজেডির উদ্ধারকাজে অংশ নেওয়া ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে, ছবিতে দেখা যায় অভিযান সম্পন্ন করার পর তারা এতটাই ক্লান্ত যে, গাড়ির সামনের আসনে এমন কী গাড়ির ছাদেও ঘুমাচ্ছিলেন।

বুধবার রাত ১০টা ৩৮ মিনিটে পুরান ঢাকার চকবাজারে আগুন লাগার পরপরই ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিজের জীবনকে তুচ্ছ করে আগুন নিয়ন্ত্রণ এবং মানুষের জীবন রক্ষার যুদ্ধ শুরু করেন আমাদের সমাজের এই আনসাঙ হিরোরা। পর‌দিন বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা ২২ মিনিটে অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করা পর্যন্ত টানা ১৪ ঘণ্টা নাওয়া খাওয়া ভুলে কাজ করেছেন ফায়ার সার্ভিসের ৩৭টি ইউনিটের কয়েকশো সদস্য।

এবারই প্রথম নয় একের পর এক লঞ্চডু‌বি, রানা প্লাজায় ভবন ধ্বস, তাজরীন গার্মেন্টসে অগ্নিকাণ্ড, নিমতলীর অগ্নিকাণ্ডসহ প্রত্যেকটি জাতীয় দুর্যোগে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পরিস্থিতি সামাল দিয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটার পুরো নাম ‘ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স’। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের অধীনস্থ একটি সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠান। ১৯৮২ সালে ফায়ার সার্ভিস পরিদপ্তর, সিভিল ডিফেন্স পরিদপ্তর এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের উদ্ধার পরিদপ্তরের সমন্বয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় বর্তমান ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীন এ প্রতিষ্ঠানটি গতি, সেবা ও ত্যাগের মূলমন্ত্রে উজ্জীবিত। প্রথম সাড়া প্রদানকারী সংস্থা(First Responder Organization) হিসেবে এ বিভাগের কর্মীরা অগ্নি নির্বাপণ, অগ্নি প্রতিরোধ, উদ্ধার, আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান, মুমূর্ষু রোগীদের হাসপাতালে প্রেরণ ও দেশী-বিদেশী ভিআইপিদের অগ্নি নিরাপত্তা বিধান করে থাকে। প্রাকৃতিক ও মানব সৃষ্ট যেকোনো দুর্যোগে এ বিভাগের অগ্নি সেনারা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানবসেবায় সদা নিয়োজিত।

আমা‌দের ফায়ার সা‌র্ভিস নানা সঙ্কটে থাকা স্বত্বেও দিন হোক, গভীর রাত হোক, একটা ইমার্জেন্সি কলেই ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সাইরেন বা‌জি‌য়ে সবার আগে হাজির হন ঘটনাস্থলে। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এমনভা‌বে কাজ করেন যেনো ম‌নে হয়, তা‌দেরই সন্তান বা স্বজন বিপ‌দে প‌ড়ে‌ছে। এমন মমত্ববোধ স‌ত্যিই বিরল।

এক বেসরকারি তথ্য মতে, শুধু আগুন নেভা‌নোর কাজ কর‌তে গি‌য়েই গত সাত বছ‌রে অন্তত ১২ জন ফায়ার সদস্য প্রাণ হা‌রি‌য়ে‌ছেন। আহত হ‌য়ে‌ছে আরও অনেকে। তারা ইহ জাগতিক যাবতীয় লোভ লালসার ঊর্ধ্বে উঠে গিয়ে জনসেবার ব্রত নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। বাংলাদেশে আনসাং হিরো শব্দটা তা‌দের জন্যই। এই শহরে ও দু‌র্যো‌গের এই দেশে তারাই আসল নায়ক। তাই এই বা‌হিনীর প্রতিটা সদস্যকে স্যালুট। আপনারাই বাংলা‌দেশ। স্যালুট তাই আপনা‌দের।


এ জাতীয় আরো খবর
ThemeCreated By ThemesDealer.Com